ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম সকল নিয়ম

5/5 - (1 vote)

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম সকল নিয়ম

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট এর প্রকারভেদ ইসলামী ব্যাংকের অধীনে আপনি যদি একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চান, তাহলে আপনি চাইলে ভিন্ন ভিন্ন তিন রকমের একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

  • কারেন্ট অ্যাকাউন্ট।
  • সেভিংস একাউন্ট।
  • স্টুডেন্ট একাউন্ট।

উপরে উল্লেখিত তিনটি ভিন্ন ভিন্ন ব্যাংক একাউন্টের ক্যাটাগরিতে তিনজন ভিন্ন ভিন্ন মানুষের জন্য প্রযোজ্য এবং কিভাবে আপনি এই অ্যাকাউন্ট খুলবেন সম্পর্কে এবার জেনে নিন।

কারেন্ট ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট

মূলত কারেন্ট ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট যেকারো জন্য খোলার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। এই একাউন্টে কোন রকমের ইন্টারেস্ট প্রযোজ্য হবে না। কারেন্ট ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট ব্যবহারকারীরা চাইলে প্রতিদিন লিমিট ছাড়া ট্রানজেকশন করতে পারবে এবং লেনদেন করতে পারবে।

ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম
ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম

মূলত কারেন্ট ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট যে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য কিংবা আপনার ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ইসলামী ব্যাংকের অধীনে খোলা যাবে।

এবার তাহলে দেখে নিন কারেন্ট ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে যে সমস্ত রিকোয়ারমেন্ট এর প্রয়োজন হবে সেগুলো সম্পর্কে। অর্থাৎ এই একাউন্ট খুলতে কি কি লাগবে এই সম্পর্কে।

আরো জানুন: ই কমার্স কি – ইলেকট্রনিক কমার্স

একাউন্ট তৈরীর ডকুমেন্টসঃ

গ্রাহকের ভোটার আইডি কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স পাসপোর্ট অথবা জন্ম নিবন্ধন এর ফটোকপি।
গ্রাহকের ২ কপি সদ্য তোলা রঙ্গিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
নমিনির নির্বাচনকৃত ব্যক্তির একটি জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি এবং এক কপি রঙিন ছবি।
আপনার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের সার্টিফিকেট বা ই টিন সার্টিফিকেট প্রযোজ্য হবে।
ডকুমেন্টস যদি সঠিক থাকে তাহলে আপনাকে একটি ফরম ফিলাপ করতে হবে এই ফর্মে ব্যাংক থেকে কালেক্ট করতে পারেন কিংবা তাদের অনলাইন শাখা থেকে কালেক্ট করতে পারেন।

আপনি চাইলে ডাইরেক্টলি নিম্নলিখিত লিঙ্ক থেকে একাউন্ট অপেনিং ফর্ম ডাউনলোড করতে পারেন এবং এটি প্রিন্ট আউট করার মাধ্যমে ফিলাপ করে নিকটস্থ ব্যাংকে জমা দিতে পারেন।

লিংক

ইসলামী ব্যাংক সেভিংস একাউন্ট তৈরীর নিয়ম

তবে আপনি যদি ব্যবসায়িক একাউন্ট তৈরী করেন কিংবা ইসলামী ব্যাংক সেভিংস একাউন্ট তৈরি করার ইচ্ছা করেন, তাহলে বিভিন্ন রকমের ডকুমেন্টস প্রদান করতে হবে অর্থাৎ আপনার অ্যাকাউন্টের প্রকারভেদে ডকুমেন্ট প্রদান করতে হবে। ব্যবসায়িক একাউন্ট খোলার জন্য যা প্রযোজ্য হবে।

প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসঃ

গ্রাহকের ভোটার আইডি কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স পাসপোর্ট অথবা জন্ম নিবন্ধন এর ফটোকপি।
গ্রাহকের ২ কপি সদ্য তোলা রঙ্গিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
নমিনির নির্বাচনকৃত ব্যক্তির একটি জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি এবং এক কপি রঙিন ছবি।
আপনার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের সার্টিফিকেট বা ই টিন সার্টিফিকেট প্রযোজ্য হবে।

এছাড়াও যা প্রয়োজন হবেঃ

  • আপনার প্রতিষ্ঠান যদি ট্রাস্ট হয় তাহলে ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠান দলিল বা এটি প্রমাণ এর কাগজ।
  • প্রতিষ্ঠান স্কুল-মাদ্রাসা বিশ্ববিদ্যালয় হলে ম্যানেজিং কমিটির রেজুলেশন থাকতে হবে।
  • প্রতিষ্ঠান লিমিটেড কোম্পানি হলে মেমোরেন্ডাম এন্ড আর্টিকেলস অব এসোসিয়েশন এর সত্যায়িত অনুলিপি।
    উপরে মাত্র কয়েকটি ব্যবসায়িক একাউন্ট এর প্রকারভেদ বর্ণনা করা হলো। এবার আপনার প্রয়োজন বেঁধে যে সমস্ত
  • ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের জন্য অ্যাকাউন্ট খুলতে চান, সেই সমস্ত প্রতিষ্ঠান সঠিক দলিল পেশ করতে হবে।

ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট

আপনি যদি একজন ছাত্র হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট তৈরি করতে পারেন। মূলত এই ব্যাংকিং ব্যবস্থা তৈরি করা হয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের উপকারে ব্যাংককে নিয়োজিত করার জন্য। এছাড়াও ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট এর অনেক সুবিধা রয়েছে।

ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট এর সুবিধা

আপনি যদি ইসলামী ব্যাংকের অধীনে একটি স্টুডেন্ট একাউন্ট তৈরি করেন তাহলে যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন, সেগুলো নিচে তুলে ধরা হলো।

এটিএম চার্জ দিতে হবে না। অর্থাৎ বাৎসরিক এটিএম বুথ থেকে টাকা তোলার ক্ষেত্রে কোন চার্জ দিতে হবে না।
ইন্টারনেট ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করার সুবিধা রয়েছে। মাত্র ১০০ টাকা দিয়ে একাউন্ট তৈরি করা যাবে।

যে কোন শাখায় টাকা ট্রান্সফারের সুবিধা।

একদম স্বল্পমূল্যে ব্যাংক একাউন্ট তৈরী করার অফুরন্ত সুবিধা, ইত্যাদি।
মূলত একটি স্টুডেন্ট একাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে উপরে উল্লেখিত সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

স্টুডেন্ট অ্যাকাউন্ট তৈরি ডকুমেন্টঃ

  • গ্রাহকের যদি এনআইডি কার্ড থাকে তাহলে এনআইডি কার্ডের ফটোকপি। না থাকলে জন্মনিবন্ধনের ফটোকপি।
  • ২ কপি সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের রঙ্গিন ছবি।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রত্যয়ন পত্র কিংবা সর্বশেষ বেতন এর একটি স্লিপ।
  • যাকে নমিনি হিসেবে নির্বাচন করা হবে তার জন্ম নিবন্ধন কার্ডের ফটোকপি এবং এক কপি রঙিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  • পিতা-মাতা অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।

FAQS

ইসলামী ব্যাংক ডিপিএস লাভ কত?

মূলত ইসলামী ব্যাংক ডিপিএস লাভ নির্ভর করে আপনি কয় বছরের ডিপিএস করছেন কয় টাকা করে রাখছেন তার উপর। এই বিষয়ে ইসলামী ব্যাংকের অফিসিয়াল সাইটে তথ্য পেয়ে যাবেন।

ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং চালু আছে?

হ্যাঁ। অন্যান্য ব্যাংকের মতো ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং চালু রেখেছে।

ইসলামী ব্যাংকের সেবা সমূহ কি কি?

অন্যান্য ব্যাংকে দেওয়া সকল সেবা ইসলামী ব্যাংক দিয়ে থাকে। একই সাথে স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রেখেছে ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড।

অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খোলা যায়?

হ্যাঁ। সেলফিন নামের একটি মোবাইল অ্যাপ থেকে ইসলামী ব্যাংকের একাউন্ট ঘরে বসেই খোলা যায়।

ইসলামী ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা কে?

Islami ব্যাংকের মূল প্রতিষ্ঠাতা মীর কাসেম আলী।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *