ভিশন ছোট ফ্রিজের দাম কত

ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২১

Rate this post

ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২১ 

আসছে ঈদুল আজহা। বাংলাদেশে কোরবানির ঈদে ফ্রিজের চাহিদা থাকে সবচেয়ে বেশি। আদিম যুগ থেকে মানুষ বিভিন্নভাবে খাদ্য সংরক্ষণ করে আসছে। বর্তমানে মানুষ খাদ্য সংরক্ষণ করে ফ্রিজে। মানুষের চাহিদা এবং যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রতিদিন নতুন নতুন ফ্রিজ বাজারে আসছে। সাধারণ প্রয়োজনের পাশাপাশি কোরবানির গোশত সংরক্ষণের তাগিদে ফ্রিজ কেনেন ক্রেতারা। কোরবানি ঈদে ফ্রিজের বাড়তি চাহিদাকে ঘিরে ৪ লাখ ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট নিয়েছে ওয়ালটন। টার্গেট পূরণে বাজারে সর্বোচ্চসংখ্যক মডেলের রেফ্রিজারেটর ও ফ্রিজার সরবরাহ করছে প্রতিষ্ঠানটি। দুয়ারে ঈদুল আযহা, কোরবানির ঈদ। এই সময়কে বলা হয় ফ্রিজ বিক্রির প্রধান মৌসুম। প্রতিবারের মতো এই মৌসুমেও ব্যাপকভাবে বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটন ফ্রিজ।

সারা দেশে ওয়ালটন আউটলেটগুলোতে প্রদর্শন ও বিক্রি হচ্ছে শতাধিক মডেলের ফ্রিজ। এর মধ্যে রয়েছে আধুনিক মডেলের দৃষ্টিনন্দন সাইড বাই সাইড ডোর এবং ডিপ ফ্রিজ। ঈদ উপলক্ষে ডিজিটাল ক্যাম্পেইনে ফ্রিজ ক্রেতাদের মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগসহ কোটি কোটি টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার দিচ্ছে বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। জানা গেছে, ঈদ বাজারে একমাত্র ওয়ালটনের রয়েছে সর্বোচ্চ সংখ্যক মডেলের ফ্রস্ট, নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর এবং ফ্রিজার। এর মধ্যে নতুন এনেছে প্রায় অর্ধশত মডেল। ওয়ালটন ফ্রিজ একদিকে আন্তর্জাতিক মানের, অন্যদিকে দামেও সাশ্রয়ী। প্রযুক্তি ও ডিজাইনের দিক থেকেও অত্যাধুনিক। এর মধ্যে রয়েছে রয়েছে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার প্রযুক্তির সাইড বাই সাইড ডোর, গ্লাস ডোর, বিএসটিআই’র ‘ফাইভ স্টার’ এনার্জি রেটিং প্রাপ্ত রেফ্রিজারেটর। আরো আছে বিশেষ ডিজাইনে তৈরি ৫০-৫০ মডেলের রেফ্রিজারেটর। এর ডিপ অংশে রয়েছে নরমাল অংশের সমান বিশাল জায়গা। ফলে ওয়ালটন ফ্রিজের দাম জানা থাকলে গ্রাহকের আলাদা করে আর ডিপ ফ্রিজ কেনার প্রয়োজন পড়ে না।

ওয়ালটন ফ্রিজ: ওয়ালটন বাংলাদেশের একমাত্র দেশীয় পন্য। যে কিনা স্বল্প টাকায় ভাল মানের পন্য আমাদেরকে উপহার দিতে পারে। ওয়ালটন ফ্রিজ দেশীয় পন্য হওয়াই অন্য সব কম্পানির তুলনাই মূল্য অনেক বেশি সাশ্রয়ী। আমাদের দেশে যে সকল ফ্রিজ কম্পানি আছে, ওয়ালটন ফ্রিজের দাম কম হলেও এর গুনগত মান অন্য সকল কোম্পানির ফ্রিজের তুলনায় অনেক ভালো। ফ্রিজের দাম দেখে নয় বরং গুণগত মান দেখেই আমাদের ফ্রিজ কেনা উচিত। আমরা ওয়ালটন ফ্রিজের দাম, সিঙ্গার ফ্রিজের মূল্য তালিকা, যমুনা ফ্রিজের দাম, মিনি ফ্রিজের দাম লিখে প্রায়ই সার্চ করে থাকি।

এই লিখাটি পড়লে আপনি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১ এর সর্বশেষ আপডেট জানতে পারবেন। বিশেষ করে এই লেখায় আমরা ওয়ালটন ফ্রিজ ৮ সেফটি দাম, ওয়ালটন ফ্রিজ ১১ সেফটি দাম, ওয়ালটন ফ্রিজ ১৪ সেফটি দাম, ওয়ালটন ফ্রিজ ১৬ সেফটি দাম এবং ওয়ালটন ফ্রিজ ১৮ সেফটি এর বর্তমান দাম তুলে ধরব। সেই সাথে কিস্তিতে ওয়ালটন ফ্রিজের দাম কত হতে পারে সে বিষয়েও আলোচনা করার চেষ্টা করব।

ওয়ালটন ফ্রিজ 12 সেফটি দাম কত

বাংলাদেশের বাজারে দেশি-বিদেশি, নামি-দামি সকল ব্রান্ডের ফ্রিজ পাওয়া যায়। একজন ক্রেতা যখন ফ্রিজ ক্রয় করতে যায় ,তখন সে সকল কোম্পানির সকল ধরণের ফ্রিজ যাচাই করে থাকে। কিন্তু শেষ পযন্ত দেখা যায়, ওয়ালটন ফ্রিজ যত কম দামে উন্নত প্রযুক্তির যে ফ্রিজটা দিতে পারে সেই দামে অন্য কোন ব্রান্ড দিতে পারে না। ওয়ালটন আমাদের দেশের ভিতরে তৈরি হওয়ায় তাদের ফ্রিজে বিভিন্ন ধরণের খরচ কম হয়ে থাকে।

ওয়ালটন ফ্রিজ বর্তমানে বাংলাদেশের সেরা ফ্রিজের খেতাব অর্জন করেছে। এই খেতব অর্জনের অন্যতম কারণ হল ফ্রিজের মানের ব্যাপারে কোন প্রকার আপোষ না করা। একটি উন্নত প্রযুক্তির ফ্রিজ তৈরি করতে যেসব টেকনোলজির প্রয়োজন হয় ,সেই সকল টেকনোলজি ওয়ালটল তাদের রেফ্রিজারেটরে ব্যবহার করে থাকে। ওয়ালটন তাদের রেফ্রিজারেটরে বিদ্যুৎ সাশ্রয় প্রযুক্তির পাশাপাশি বৈচিএ কালারের নান্দনিক ডিজাইন, ন্যানো সিলবার বডি, ফাস্ট কুলিং সিস্টেম, ডিরেক্টর সহ আরও অনেক প্রযুক্তি ব্যবহার করে থাকে। তাছাড়া ওয়ালটন কম দামে বেশি ধারণ ক্ষমতার ফ্রিজ দিয়ে থাকে। ওয়ালটন ফ্রিজে সংরক্ষণ করা খাবারের মান দীর্ঘ সময় পর্যন্ত বজায় রাখার ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিয়ে থাকে। ওয়ালটনের একটি ফ্রিজে উন্নত সকল প্রযুক্তি একসঙ্গে পাওয়া যায় । ওয়ালটন ফ্রিজের গুনগত মান ভাল হওয়ায় দেশের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারেও তাদের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলছে।

ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা ২০২২

বাজারের যত সাইজের ফ্রিজ আছে তন্মধ্যে ৮ সেফটি এর ফ্রিজ হচ্ছে সবচাইতে ছোট। সাধারণত খুব অল্প পরিমানে জিনিসপত্র রাখার কাজে ব্যবহার করার জন্য ওয়ালটন ৮ সেফটি এর ফ্রিজ কেনা হয়। আপনার যদি ছোট ফ্রিজ এর প্রয়োজন হয়ে তাহলে এ ধরনের ছোট ফ্রিজ কিনতে পারেন। ওয়ালটন এর ৮ সেফটির ফ্রিজ মাত্র ১০ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। আশাকরি ফ্রিজটি আপনার পছন্দ হবে। বিস্তারিত নিচে দেখুন—

১। ওয়ালটন ফ্রিজের দাম WFO-1A5-RXXX-XX
দাম: ১৪৩০০/- টাকা।
ওজন: ২৬ কেজি।
ক্যাপাসিটি: ১১৫ লিটার।
কালার: অফ-হোয়াইট সিলভার ও গোল্ড সিলভার।
দৈর্ঘ্য: ৯০ সে.মি
প্রস্থ: ৫০ সে.মি
নেনো সিলভার টেকনোলজি।
ফাস্টার কুলিং স্পিড।
ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধক
ইকোলজিক্যাল সেইফ।
প্রিভেন্ট বেড ডোর।
সাশ্রয়ি মূল্যের ওয়ালটন ফ্রিজের মধ্যে এই মডেলের ওয়ালটন ফ্রিজ হচ্ছে সবচাইতে সেরা। আপনি মাত্র ১৪ হাজার টাকায় পেয়ে যাচ্ছেন ১১৫ লিটার ক্যাপাসিটি সমৃদ্ধ একটি ভালোমানের ওয়ালটন ফ্রিজ। আপনি যদি কম দামের মধ্যে ফ্রিজ কিনতে চান তাহলে ওয়ালটনের এই ফ্রিজটি হবে আপনার জন্য সবচাইতে পারফেক্ট একটি ফ্রিজ। আপনার পরিবার ছোট/সিংগ্যাল ফ্যামেলি হয়ে থাকলে আপনি ওয়ালটনের এই মডেলের ফ্রিজটি ক্রয় করতে পারেন।

ভিশন ছোট ফ্রিজের দাম কত
ভিশন ছোট ফ্রিজের দাম কত

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *