জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh

Rate this post

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh

অনলাইনে নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক করা যায় না। শুধুমাত্র ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং সঠিক জন্ম তারিখ দিয়ে যাচাই করা সম্ভব। (জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক)
2004সন-03মাস-24তারিখ’’ দিন এবং সর্বশেষ ক্যাপসা দিয়ে সার্চ বাটনে ক্লিক করলে আপনার অনলাইন জন্ম সনদের সকল তথ্য, যেমন- নিজ নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, জন্ম তারিখ, স্থায়ী ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানা ইত্যাদি বাংলায় এবং ইংরেজীতে দেখতে পাবেন। নিচের ইমেজ গুলো লক্ষ্য করুন।

১) প্রথমে লক্ষ্য করুন Birth Registration Number নামক একটি ঘর আছে। আপনি সেখান জন্ম নিবন্ধন নাম্বার প্রদান করুন।

(২) দ্বিতীয়তে লক্ষ্য করুন জন্ম তারিখ দেওয়ার একটি বক্স থাকবে সেখানে আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধনে থাকা জন্ম তারিখটি সঠিক ভাবে দিন ‘যেমন- 2004সন-03মাস-24তারিখ’’ ।

(৩) তৃর্তীয়তে ক্যাপসা ঘরটি লক্ষ্য করুন এবং সেখানে যদি যোগ দেওয়ার কথা বলে তাহলে যোগ ফল দিবেন এবং যদি বিয়োগ থাকে বিয়োগ করে ফলাফল দিতে দিন।

(৪) পরবর্তীতে আপনি একটু খেয়াল করলে দেখতে পাবেন সার্চ নাম একটি বাটন আছে আপনি সেখানে ক্লিক করলে আপনি নিচের ইমেজটির মত আপনার সকল তথ্য দেখতে পাবেন।

আপনি পরবর্তীতে উপরের ছবিটি লক্ষ্য করুন আপনি যদি আমি যে ভাবে দেখিয়েছি সে ভাবে তথ্য পূরণ করেন তাহলে আপনি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন এর কপি ঠিক সেই ভাবে আপনার মোবাইলে দেখতে পাবেন এবং আপনি স্কেনশর্ট দিয়ে নিজের কাছে সংরক্ষন করতে পারবেন

যদি আপনি চান, আমি আমার জন্ম নিবন্ধন দেখব। আপনি অনলাইনেই তা দেখতে পারবেন। বাংলাদেশের প্রত্যেক নাগরিকের জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনলাইনে দেখা যায়। এটা দেখার জন্য অবশ্যই ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ প্রয়োজন হবে।

যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ১৬ ডিজিটের হয় এটি ১৭ ডিজিটে রুপান্তর করতে হবে। পড়ুন- কিভাবে ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন ১৭ ডিজিট করবেন।

আমাদের অনেকে যারা প্রথম দিকে নিবন্ধন করেছিলাম, তাদের জন্ম সনদটি হাতে লেখা ছিল। ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনে রেজিষ্টার বইতে আমাদের তথ্যসমূহ লিপিবদ্ধ ছিল। পরবর্তীতে এসকল তথ্য অনলাইন ডাটাবেইজে আনা হয়। তখন থেকে জন্ম নিবন্ধন সনদকে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন বা অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ বলা হয়।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড

৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা আছে কিনা দেখার উপায় এখানে দেখে নিন। অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করণ পদ্ধতি খুবই সহজ। যদি আপনার কম্পিউটার না থাকে, আপনি চাইলে মোবাইলে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কিনা তা চেক করতে নিচের দেখানো ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

ধাপ- ১: ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড যাচাই করতে, আপনার মোবাইলের গুগল ক্রোম App টি ওপেন করুন। অনলাইনে বার্থ সার্টিফিকেট ভেরিফাই করতে everify.bdris.gov.bd (জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps) ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।
উক্ত সাইটে ভিজিট করার পর নিচের মত একটি পেইজ পাবেন। এখানে ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক করতে পারবেন।

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

ধাপ-২: প্রথমে আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নম্বরটি লিখুন এই বক্সে জন্ম তারিখ লিখুন এই ফরমেটে জন্ম নিবন্ধন যাচাই YYYY MM DD । এরপর নিচের ক্যাপচাটি পূরণ করুন। নিচের বাম পাশের Search বাটনে ক্লিক করুন।
যদি আপনার জন্ম নিবন্ধনটি ডিজিটাল হয় এবং অনলাইন ডেটাবেইজে থাকে, তাহলে নিচের মত একটি পেইজে জন্ম নিবন্ধন তথ্য দেখতে পাবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি

এই পেইজটি হচ্ছে জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি। বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমাদের তথ্যের নিশ্চয়তার জন্য জন্ম নিবন্ধনের ভেরিফিকেশন কপি প্রয়োজন হতে পারে। আপনি এটি প্রিন্ট করে ব্যবহার করতে পারেন।

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন যাচাই –
বিভিন্ন প্রয়োজনে অনেক সময় অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল কিনা যাচাইরার প্রয়োজন হতে পারে। কারো জন্ম নিবন্ধন তথ্য সঠিক কিনা বা জন্ম নিবন্ধন সনদ আসল কিনা তা যাচাই করে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই কপি ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে যদি আপনার ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার ও জন্ম তারিখ দিয়ে সার্চ করার পরও No Record Found মেসেজ আসে, এর ২টি কারণ হতে পারে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh
জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *