ত্বরণ কাকে বলে

ত্বরণ কাকে বলে – সকল তথ্য

5/5 - (1 vote)

ত্বরণ কাকে বলে

বলবিজ্ঞানে ত্বরণ (Acceleration) হলো সময়ের সাথে কোনও বস্তুর বেগ পরিবর্তনের হার। ত্বরণ কাকে বলে এটি একটি সদিক রাশি বা ভেক্টর রাশি, অর্থাৎ এটির মান ও দিক উভয়ই বিদ্যমান। কোনও বস্তুর ত্বরণের দিক সেই বস্তুর উপর প্রযুক্ত বলসমূহের লব্ধি বলের দিকে হয়। ত্বরণ কাকে বলে ত্বরণ হচ্ছে সময়ের সাথে বেগের পরিবর্তনের হার। অর্থাৎ একক সময়ে বস্তুর বেগের পরিবর্তনকে ত্বরণ বলে। যেমন, বেগকে v, সময়কে t এবং ত্বরণকে সাধারনত a দ্বারা প্রকাশ করে। ত্বরণের এসআই একক হচ্ছে m/s^2। এছাড়াও ত্বরণ=বেগ​ / সময়।

ত্বরণ প্রধানত ২ প্রকার।

যেমন,

১। ধনাত্মক ত্বরণঃ বেগ বৃদ্ধির হার হচ্ছে ধনাত্মক ত্বরণ।

২। ঋনাত্মক ত্বরণঃ বেগ হ্রাসের হার হচ্ছে ঋনাত্মক ত্বরণ।

আরো জানুন: ১ ভরি কত গ্রাম – দেশীয় হিসাব স্বর্ণ পরিমাপের একক

অভিকর্ষজ ত্বরণ কাকে বলে

অভিকর্ষজ ত্বরণ হলো ওপর থেকে পড়ন্ত বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হার। অর্থাৎ অভিকর্ষ বলের প্রভাবে ভূপৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়ন্ত বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হারকে অভিকর্ষজ ত্বরণ বা Gravitational acceleration বলে। একে g দ্বারা প্রকাশ করা হয়।

পৃথিবীতে অভিকর্ষ ত্বরনের মান ৯.৮ মিটার/সেকেন্ড২।

সুষম ত্বরণ কাকে বলে

প্রতি সেকেন্ডে বেগের পরিবর্তন যখন সমভাবে হয় তখন তাকে সুষম ত্বরণ বলে। অর্থাৎ কোনো বস্তুর বেগ যদি নির্দিষ্ঠ দিকে সবসময় একই হারে বাড়তে থাকে তাহলে সে ত্বরণকে সুষম ত্বরণ বা সমত্বরণ বলে।

ত্বরণ নির্ণয়ের সূত্র

ত্বরণ হচ্ছে সময়ের সাথে কোনো বস্তুর বেগ পরিবর্তনের হার। এটি একটি ভেক্টর রাশি, অর্থাৎ এটির মান ও দিক উভয়ই বিদ্যমান।

ত্বরণ কাকে বলে
ত্বরণ কাকে বলে

কোনো বস্তু u আদিবেগে t সময় পর v শেষবেগ প্রাপ্ত হলো।

t সময়ে বস্তুর বেগের পরিবর্তন v-u

একক সময়ে বস্তুর বেগের পরিবর্তন (v-u)÷t

সুতরাং ত্বরণ নির্ণয়ের সূত্র a = (v-u)÷t।

যেমন,

একটা সাইকেল ১০ m/s আদিবেগে ২ সেকেন্ড পর ৩০ m/s শেষবেগ প্রাপ্ত হলো। গাড়িটির ত্বরণ কত?

২ সেকেন্ডে গাড়িটির বেগের পরিবর্তন ৩০-১০

১ সেকেন্ডে গাড়িটির বেগের পরিবর্তন (৩০-১০)÷২ = ১০

সুতরাং, ত্বরণ হবে ১০ m/s^2

ত্বরণের এসআই একক হলো m/s^2

গুগল নিউজ

বেগ ও ত্বরণের মধ্যে পার্থক্য

বেগ হচ্ছে একক সময়ে সরণের হার। অন্যদিকে একক সময়ে বেগ পরিবর্তনের হারকে ত্বরণ বলে।

বেগের একক S.I. পদ্ধতিতে মিটার/সেকেন্ড পদ্ধতিতে নির্ণয় করা হয়। কিন্তু ত্বরণের একক S.I. পদ্ধতিতে মিটার/সেকেন্ড^2 পদ্ধতিতে নির্ণয় করা হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *