নার্সিং এ ভর্তির যোগ্যতা

নার্সিং এ ভর্তির যোগ্যতা

4/5 - (1 vote)

নার্সিং এ ভর্তির যোগ্যতা

নার্সিং এ ভর্তির যোগ্যতা একজন চিকিৎসকের সহযোগিতা করার জন্য একটি নার্স কাজ করে থাকে। বর্তমানে আমাদের দেশের যোগ্য নার্সের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আমাদের দেশের একজন নার্স একজন পেশাগত ডাক্তারের সহযোগী, বিভিন্ন রকমের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করে থাকে।

সরকারি-বেসরকারি নার্সিং ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাংক ২০২৩

আপনিও নার্সিং কলেজে ভর্তি হতে চাচ্ছেন। বর্তমানে নার্সিং পেশা অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কারণ আমাদের দেশের যোগ্য নার্সের সংখ্যা অনেক কম। আপনি যদি একজন যোগ্য নার্স হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার পেশাগত জীবনে সফলতা অর্জন করতে পারবেন। নার্সিং কলেজে ভর্তি হওয়ার জন্য আপনারা আলাদা কিছু যোগ্যতা দরকার হবে। তাই আজকে আমরা সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা সম্পর্কে আলোচনা করব।

Google News Flow Now

সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা

আমাদের দেশ থেকে যে সকল শিক্ষার্থী নার্সিং বিষয়ে পড়াশোনা করতে চায়। তাদের সবাই সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তি হতে চায়। কারণ সরকারি নার্সিং কলেজের সুযোগ সুবিধা অনেক বেশি। এছাড়াও সরকারের নার্সিং কলেজে পড়াশোনা করার জন্য,আপনাকে বেশি টাকা খরচ করতে হবে না। এ কারণে সবাই সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তি হতে চায়।

কিন্তু সরকারের নার্সিং কলেজের ভর্তি হওয়ার জন্য আপনার আলাদা কিছু বৈশিষ্ট্য ও যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। যে সকল শিক্ষার্থী এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার সন্তুষ্ট জনক ফলাফল অর্জন করেছে, তাদের সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তি করা হয়। চলুন জেনে নেই,সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা গুলো কি কি।

বিএসসি বিষয়ে সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা

আবেদনকারী অবশ্যই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ থেকে দিতে হবে।
এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় সর্বমোট জিপিএ ন্যূনতম ৭.০০ পয়েন্ট লাগবে।
এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জীববিজ্ঞান বিষয়ে জিপিএ ন্যূনতম ৩.০০ থাকতে হবে।

সরকারি নার্সিং ভর্তি যোগ্যতা ২০২৩ – বেসরকারি নার্সিং ভর্তি যোগ্যতা ২০২৩

এছাড়াও কোন শিক্ষার্থী যদি বেসরকারি কলেজ নার্সিং বিষয়ে পড়াশোনা করতে চায়,তাহলে সেই শিক্ষার্থীকে ন্যূনতম এইচএসসি পাস করতে হবে। বেসরকারি নার্সিং কলেজে আবেদন করার জন্য আপনার এসএসসি পরীক্ষার জিপিএ নূন্যতম ৩.০০ পয়েন্ট লাগবে। আবার এইচএসসি পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ২.৫০ পয়েন্ট অর্জন করতে হবে।

সাধারণত আপনি যখন সরকারি নার্সিং প্রতিষ্ঠানে কোর্স করবেন,তখন বিভিন্ন রকমের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারেন। এজন্য আপনাকে বাংলাদেশ নার্সিং কাউন্সিল অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানে নার্সিং কোর্স করতে হবে। সরকারিভাবে আপনি দুটি পদ্ধতিতে নার্সিং কোর্সে ভর্তি হতে পারবে। ডিপ্লোমা ইন নার্সিং ও bsc ইন নার্সিং কোর্স। ইতিমধ্যে *সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন।

নার্সিং পড়ার যোগ্যতা

কোন শিক্ষার্থী যদি সরকারি কলেজে নার্সিং বিষয়ে পড়তে করতে চায়, তাহলে তাকে বাংলাদেশে স্থায়ী নাগরিক হতে হবে। এছাড়াও আবেদনকারীর বয়স অনূর্ধ্ব ২২ বছর থাকতে হবে। সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা গুলোর মধ্যে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ যথাক্রমে ৩.৫০ ও ৩.৫০ পয়েন্ট হতে হবে।

বাংলাদেশে অনলাইনে লোন পাওয়ার উপায়

নার্সিং ভর্তি হতে কত টাকা লাগে

সরকারি নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা গুলো জানার পর, নার্সিং বিষয়ে পড়াশোনা করার জন্য সর্বমোট কত টাকা খরচ হবে এটা জানা দরকার। আপনি যদি সরকারি কলেজে নার্সিং বিষয়ে পড়াশোনা করতে চান,তাহলে প্রায় এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা খরচ হবে। আপনি যদি বেসরকারি কলেজে নার্সিং পড়তে চান,তাহলে প্রায় তিন লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে।

নার্সিং এ ভর্তির যোগ্যতা
নার্সিং এ ভর্তির যোগ্যতা

কিন্তু বেসরকারি নার্সিং কলেজে পড়ার খরচ বিভিন্ন রকমের হয়ে থাকে। আপনি যদি বিএসসি নার্সিং কোর্স করতে চান,তাহলে খরচ একটু বেশি হবে। আবার আপনি যদি ডিপ্লোমা ইন নার্সিং কোর্স করতে চান,তাহলে সেক্ষেত্রে খরচ একটা কম হবে। আবার আপনি যদি সরকারি কলেজ থেকে নার্সিং কোর্স করতে চান,তাহলে তুলনামূলক খরচ অনেক কমে যাবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *