পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয়

Rate this post

পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয়

পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয় আজকে আমরা জানবো পৃথিবী সৃষ্টি হয়েছিল কিভাবে এবং কবে পৃথিবী সৃষ্টির শুরু হয়েছিল এ সম্পর্কে বিজ্ঞান কি বলে এবং ইতিহাস বিস্তারিত আলোচনা করব।

হারানো সিম বন্ধ করার নিয়ম

আমাদের এই পৃথিবী প্রায় ৪৫০ কোটি বছর আগে সৃষ্টি হয়। এই পৃথিবী শুরুতেই এরকম ছিলনা। পৃথিবীর সৃষ্টির শুরুর দিকে বিশাল জনসমুদ্রের মাঝে সামান্য কিছু স্থল ভাগ ছিল। ছোট ছোট দ্বীপের ভাগ ছিলো ভিবিন্ন আগ্নেয়গিরি থেকে সবসময় যে লাভা উত্তোলন হতো এবং টেকটোনিক মুভমেন্ট এর কারণে আস্তে আস্তে বড় হতে থাকে স্থল ভাগ। তবে এ পৃথিবীতে একটা সময় মহাদেশ ছিল শুধু একটি কিন্তু যেটা সময়ের সাথে আস্তে আস্তে পরিবর্তন হয় বর্তমান রুপে এসেছে। এটি বলেছেন জার্মানি বিজ্ঞানী আলফ্রেড ওয়েগনার।

Google News Flow Now

সেই এক মহাদেশের নাম ছিল প্যানজিয়া কি রকম ছিল দেখতে সেই প্যানজিয়া এবং কিভাবে ও কেন বিভক্ত হয়ে আলাদা আলাদা মহাদেশ সৃষ্টি হল চলুন বিস্তারিত জেনে নেই।

কিভাবে সৃষ্টি হয়েছিল পৃথিবী

প্রায় সাড়ে ৪৫০ কোটি বছর আগে সূর্য থেকে পৃথিবী সৃষ্টি হয়। চাঁদ সৃষ্টি হয় পৃথিবীর সাথে মঙ্গলের একটি গ্রহের সাথে সংঘর্ষ হয় এই সংঘর্ষের ফলে ভাড়ি পদার্থ পৃথিবী মুখের দিকে জমা হতে থাকে অন্যদিকে অক্সিজেন সিলিকন সরল পদার্থগুলো উপরে উঠে আসে। আমাদের মাঝে অনেকেই প্রশ্ন জাগে তাহলে ভূমি সৃষ্টি হয় কিভাবে এই ভূমি সৃষ্টির ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রয়েছে ধুমকেতু ও পৃথিবী চারপাশে গ্রহাণুপুঞ্জ রয়েছে সেগুলোর ভূমিকা সবচাইতে বেশি। কেননা পৃথিবী তৈরীর শুরুর দিকে ধুমকেতু ও গ্রহাণুপুঞ্জের আঘাতেই ভূমি তৈরি হয়।

এটাই শেষ নয় বিজ্ঞানীদের মতে প্রাণ সৃষ্টির জন্য প্রয়োজনীয় হাইড্রোকার্বন বা কার্বন ভিত্তিক যে জৈবযোগ রয়েছে তা ধুমকেতু থেকেই সৃষ্টি হয়। যেহেতু সূর্য থেকে পৃথিবীর সৃষ্টি হয়েছে তার সৃষ্টির শুরুর দিকে গ্রহ ব্যাপক উত্তপ্ত থাকলেও তা পরবর্তীতে আস্তে আস্তে ঠান্ডা হতে থাকে। আর এই প্রক্রিয়াটি একদিন বা দুইদিন নয় মিলিয়ন মিলিয়ন বছর ধরে চলছে। গলিত লাভার শীতল কঠিন অবস্থা থেকে সবার প্রথম সৃষ্টি হয় ভূমি।

ক দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম

প্রথমদিকে ভূমির উপাদান ছিল শুধু গ্রানাইট। বর্তমানে এখনো আছে তবে এই গ্রানাইট হচ্ছে পানি ও নানা খনিজ পদার্থের সাথে বিক্রিয়ায় রাসায়নিকভাবে প্রক্রিয়াকরণ হয় ভূমিরূপ ধারণ করে এটি হল মহাদেশে অবস্থা

টেকটোনিক প্লেট কি

প্যানজিয়া বা বিচ্যুতি কথা বললে শুরুতেই চলে আসে টেকটোনিক প্লেট। প্রায় ৩ মিলিয়ন বছর আগে টেকটোনিক প্লেট তৈরি হয় ভূগর্ভস্থ ম্যাগমা এবং খনিজ পদার্থ দিয়ে পৃথিবীর লিথোস্ফিয়ার স্তরে এর অবস্থান আরেকটু বুঝিয়ে বলি টেকটোনিক প্লেট নিয়েই লিথোস্ফিয়ার স্তরে গতি পদ। এর কোনো সুনির্দিষ্ট আকার নেই তবে দৈর্ঘ্য ১৫ থেকে ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। পৃথিবীর টেকটোনিক কে ৭/৮ ভাগে ভাগ করা যায়। তাছাড়া আরও অসংখ্য অসংখ্য টেকটোনিক প্লেট রয়েছে সেগুলো বর্তমানে চলমান রয়েছে সেটি খুবই কচ্ছপ গতিতে চলছে বছরে হয়তো ১০০ মিলিমিটারে মত

পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয়
পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয়

আশ্চর্যজনক ব্যাপার হলো এই টেকটোনিক প্লেট সামান্য একটু মুভমেন্ট বা নড়াচড়া করলে উপরে সুনামি অথবা ভূমিকম্প সৃষ্টি হয়।

প্যানজিয়া কি

বিজ্ঞানীদের ওয়েগনার মতে ইন্ডিয়া, আফ্রিকা,দক্ষিন এমরিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং আন্টার্টিকা এক সাথে জড়িত হয়ে গগ্ডোয়ানান্যান্ড’ গঠন করে। অন্যদিকে উওর আমেরিকা, ইউরোপ,উত্তর ও মধ্য এশিয়া লরেশিয়া অন্তর্ভুক্ত। এই দুই লরেশিয়া ও গন্ডোয়ানাল্যান্ড মিলে যে বিশাল স্থলভাগ গঠন করেছে সেটটার নাম হচ্ছে প্যানজিয়া। ৩৫০ মিলিওয়ন বছর আগে সৃষ্ট হওয়া প্যানজিয়া হলো বর্তমান সময়ে দৃশ্যমান মহাদেশ।

আবরার নামের অর্থ কি

প্যানজিয়ার বিভাজন

টেকটোনিক প্লেটের নড়াচড়া বা মুভমেন্টের কারনে প্যানজিয়া বিভক্ত হয় অসংখ্য স্থলভাগের সৃষ্টি করেছে। আর এই ঘটনা একদিনে হয়নি । ২৫০ মিলিয়ন বছর আগে যখন প্যানজিয়ার ভাঙ্গা শুরু হয় তখন পৃথিবীতে নেমে আসে এক মহা বিপর্যয় পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে বড় প্রাণী বিলুপ্ত হয়েছে সেই সময়। আর এই বিপর্যয়ের সময় পৃথিবীর প্রায় ৯০% প্রাণী বিলুপ্ত হয়ে যায়।

পৃথিবী কিভাবে সৃষ্টি হয়েছিল ভিডিও,

পৃথিবীতে মানুষ সৃষ্টির রহস্য,

পৃথিবী কিভাবে ঘুরে,

আল্লাহ কিভাবে পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন,

পৃথিবী সৃষ্টি হয়েছে কত বছর আগে,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *