সরণ কাকে বলে

সরণ কাকে বলে – সরণের পরিমাপ

5/5 - (1 vote)

সরণ কাকে বলে – সরণের পরিমাপ, কোনো বস্তু বা বিন্দু একটি অবস্থান থেকে আরেকটি অবস্থানে স্থানান্তরিত হলে, প্রথম অবস্থান থেকে দ্বিতীয় অবস্থান অবধি ভেক্টরকে সরণ বলে। সরণের পরিমাণ হলো দুটি অবস্থানের মধ্যবর্তী ন্যূনতম দূরত্ব, অর্থাৎ সরলরৈখিক দূরত্ব এবং সরণের দিক প্রথম অবস্থানটি থেকে দ্বিতীয় অবস্থানটির দিকে।

সরণ কাকে বলে – সরণের পরিমাপ

একটি উদাহরণ দিয়ে সরণ এর পরিমাপটা বুঝিয়ে দিচ্ছি। সরণ কাকে বলে – সরণের পরিমাপ ধরি একটি মেয়ে ক থেকে খ পর্যন্ত যাচ্ছে ঘুরে ঘুরে। কিন্তু ওই মেয়েটির প্রাথমিক স্থান এবং শেষ স্থানের সঙ্গে সোজাসুজি একটা রেখা টানলে যে সরল পথ পাওয়া গেল তাই সরণ।

আরো পড়ুন: ১ কুইন্টাল কত কেজি ? – কুইন্টাল কি?

সরণের সংজ্ঞা : কোনো বস্তুকণা সময়ের সাথে সাথে যখন একটি নির্দিষ্ট দিকে অবস্থান পরিবর্তন করলে, তখন ওই দিকে বস্তুকণার অবস্থান পরিবর্তনের মানকে বস্তুকণার সরণ বলে।

বস্তুকণার প্রাথমিক ও শেষ অবস্থানের মধ্যবর্তী সরলরৈখিক দূরত্ব হল সরণের পরিমাপ এবং এই নির্দিষ্ট অভিমুখ হল সরণের অভিমুখ। সরণ আলোচনা করতে হলে তার পরিমাপ ও অভিমুখ একই সঙ্গে উল্লেখ করতে হয়। যেহেতু সরণের মান অভিমুখ দুই-ই আছে তার সরণ হল একটি ভেক্টর রাশি।

সরণ কাকে বলে
সরণ কাকে বলে

সরণ কাকে বলে?

  • নির্দিষ্ট দিকে একটি বস্তু যে দূরত্ব অতিক্রম করে তাকে সরণ বলে।
    নির্দিষ্ট দিকে পারিপার্শ্বিকের সাপেক্ষে অবস্থানের পরিবর্তনকে সরণ বলে।
    বস্তুকণার প্রথম ও শেষ অবস্থানের মধ্যে যে সর্বনিম্ন রৈখিক দূরত্ব তা হলো সরণের মান এবং প্রথম অবস্থান থেকে শেষ অবস্থানের দিকে হল সরণের অভিমুখ।

সরণের একক ও মাত্রা

  • cgs পদ্ধতিতে সরণের একক সেন্টিমিটার।
  • SI পদ্ধতিতে সরণের একক মিটার।
  • সরণের মাত্রা — [ L ]
  • বস্তুর সরণ নির্ণয়
  • কোনো একটি বস্তুকণা A বিন্দু থেকে পূর্বদিকে 3 সেন্টিমিটার গিয়ে B বিন্দুতে পৌঁছে, আবার উত্তর দিকে 4 সেন্টিমিটার গিয়ে C বিন্দুতে পৌঁছলো। বস্তুকণার সরণ হবে— AC ।

গুগল নিউজ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *