জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ – নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন

Rate this post

জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ – নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন

জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ – নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন ২০২২ (bdris.gov.bd) – আপনি যদি আপনার শিশুর বা আপনার নিজের জন্ম নিবন্ধন এখনো পর্যন্ত না করে থাকেন । তাহলে নতুন জন্ম নিবন্ধন এর আবেদন কিভাবে করবেন আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে সে বিষয়টি জেনে নিন।

জন্ম নিবন্ধন বর্তমানে প্রায় প্রতিটি কাজে প্রয়োজন পড়ে তাই আপনার উচিত এখন পর্যন্ত জন্ম নিবন্ধন না করা থাকলে দ্রুত জন্ম নিবন্ধন করে নেওয়া ।

আপনি চাইলে অনলাইনের মাধ্যমে নিজেই নিজের জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে পারেন অথবা আপনি আপনার ইউনিয়ন পরিষদ এ গিয়ে জন্ম নিবন্ধনের আবেদন ফরম পূরণ করে জমা দিতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন নিয়ে তথ্য

জন্ম নিবন্ধন যাচাই 19860915428117351

জন্ম নিবন্ধন যাচাই এই লিংকে ভিজিট করুন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh – জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন এর নিয়ম

প্রথমে আসুন জেনে নেই নতুন জন্ম নিবন্ধন করার নিয়ম গুলি কি কি – জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ২০০৪ এর আইন অনুসারে শিশু জন্মের ৪৫ দিনের মধ্যে জন্ম নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক।

যদি কোন অসুবিধার কারণে ৪৫ দিনের ভেতর না করতে পারেন তাহলে আমার পরামর্শ থাকবে আপনার শিশুর ৫ বছরের মধ্যে অবশ্যই জন্ম নিবন্ধন করিয়ে নিবেন।

যদি আপনি জেনেশুনেও পাঁচ বছরের মধ্য জন্ম নিবন্ধন না করেন তাহলে নতুন জন্ম নিবন্ধন করার ক্ষেত্রে আপনাকে অতিরিক্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিতে হবে এবং ঝামেলা পোহাতে হতে পারে । তাই চেষ্টা করবেন আপনার শিশুর 5 বছরের ভিতর জন্ম নিবন্ধন করে নেওয়ার।

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে কি কি লাগে

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে আপনার প্রয়োজনীয় কি কি কাগজপত্র লাগবে নিচে আমি সেই বিষয়গুলো তুলে ধরছি।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps
জন্ম নিবন্ধন যাচাই অনলাইন চেক apps
  • 0 থেকে 5 বছরের শিশুদের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন করতে যা যা লাগবে
  • ১. ক্লিনিক বা হাসপাতালে সার্টিফিকেট বা ছাড়পত্র ( শিশু যে ক্লিনিকে জন্মগ্রহণ করেছিল )।
  • ২. শিশুটি যদি কোন হাসপাতালে জন্মগ্রহণ করে না থাকে সে ক্ষেত্রে তথ্য সংগ্রহকারী হিসেবে নিবন্ধক কর্তৃক নির্দিষ্ট করা কোন এনজিও কর্মীর প্রত্যয়ন পত্র।
  • ৩. যদি সেটিও সম্ভব না হয় তাহলে নিবন্ধকের জন্ম সংক্রান্ত কোন দলিলের সত্যায়িত অনুলিপি যেমন শিশুর টিকা কার্ড।
  • ৪. পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ অথবা জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি লাগবে।
  • ৫ বছর বা তার অধিক শিশুদের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন করতে যা যা লাগবে

জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন – নিজের নাম সংশোধনে করণীয় এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসমূহ।

  1.  এমবিবিএস ডাক্তারের প্রত্যয়ন ( বয়স প্রমাণের জন্য) ।
  2. সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড এর মেম্বার অথবা কাউন্সিলরের প্রত্যয়ন ( জন্মস্থান বা স্থায়ীভাবে বসবাসের স্থান প্রমাণের জন্য ) ।
  3. উপরের কাগজপত্র গুলি যদি আপনার না থাকে তাহলে বয়স এবং জন্মস্থান প্রমাণের জন্য তথ্য সংগ্রহকারী হিসাবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষক এর প্রত্যয়ন।
  4. এছাড়াও আপনি বয়স ও জন্মস্থান প্রমাণের জন্য ইপিআই কার্ড বা পাসপোর্ট বা মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট অথবা কোন চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের জন্ম সংক্রান্ত ছাড়পত্র সনদের সত্যায়িত অনুলিপি।
  5. জন্ম তারিখ ও ঠিকানা প্রমাণের জন্য আপনি জন্ম সংক্রান্ত কোন দলিল।
  6. এনজিও কর্মীর প্রত্যয়ন ( তবে তথ্য সংগ্রহকারী হিসাবে নিবন্ধক কর্তৃক নির্দিষ্ট করা কোন এনজিও কর্মী হতে হবে)।
  7. পিতামাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ অথবা জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *