rocket একাউন্ট খোলার নিয়ম

Rate this post

rocket একাউন্ট খোলার নিয়ম

এই প্রশ্নের উত্তরে আসে, রকেট একাউন্ট হচ্ছে ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের একটি মোবাইল ব্যাংকিং শাখা । মোবাইল ব্যাংকিং মানে হচ্ছে মোবাইলে ক্ষুদ্র পরিসরে ব্যাংকিং সুবিধা পাচ্ছেন খুব সহজে এবং ইচ্ছেমত ব্যবহার করতে পারছেন বা কন্ট্রোল করতে পারতেছেন ব্যাংকে না গিয়েই, শুধুমাত্র আপনার মোবাইল ফোনের সাহায্যেই!
রকেট একাউন্ট হচ্ছে ডাচ্ বাংলার একটি মোবাইল শাখা যেমনটা বিকাশের ব্রাকব্যাংক এবং উপায় এর ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক ।

কি কি সেবা পাবেন এই রকেট একাউন্ট?

এখন চলুন জেনে নেওয়া যাক কি কি থাকছে এই রকেট একাউন্টে অর্থাৎ কি কি সেবা আপনি রকেট একাউন্টের মাধ্যমে পাবেন। রকেট একাউন্টের সুবিধাবলী:-

ক্যাশ ইন এবং ক্যাশ আউট সুবিধা:

ক্যাশ ইন এর মাধ্যমে আপনি এই সুবিধাটির দ্বারা খুবই নিরাপদের সাথে টাকা জমা রাখতে পারবেন । মূলত প্রসেসটা হচ্ছে টাকা ডিপোজিট করা। আর একইভাবে এই জমানো টাকা আপনি যেখানে খুশি ব্যবহার করতে পারবেন যেকোন রকেট এজেন্ট পয়েন্টের কাছে ক্যাশ আউট মাধ্যমে ।
এটিএম বুথের মাধ্যমে উইথড্র:
আপনি চাইলে বা আপনার হাতের কাছে এটিএম বুথ থাকলে আরো সহজে এবং আরো কম খরচেই টাকা উইথড্র করতে পারবেন

উপায় একাউন্ট দেখার নিয়ম

মোবাইল রিচার্জ:

যেকোন সময় এবং যেকোন অবস্থায় আপনার নাম্বারে বা যে কারো নাম্বারে মোবাইলে টপ আপের মাধ্যমে রিচার্জ করতে পারবেন আপনার ইচ্ছায়!
সেন্ড মানি:
সেন্ড মানি করার মাধ্যমে আপনি আরেক রকেট ইউজারের কাছে টাকা পাঠাতে পারবেন নিরাপদভাবে খুব সহজেই!
বিল পেমেন্ট ও মার্চেন্ট পেমেন্ট:
আপনার প্রয়োজন অনুসারে বিভিন্ন ধরনের বিল যেমন বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিল ইত্যাদি বিল পে করতে পারবেন খুব সহজেই। তাছাড়া বিভিন্ন মার্চেন্ট পয়েন্ট থেকে শপিং করে টাকা পে করতে পারবেন এই রকেট একাউন্টের মাধ্যমে!
ব্যাংক টু রকেট মানি ট্রান্সফার:
আপনি ব্যাংক থেকেও টাকা রকেট নিয়ে এসে ব্যবহার করতে পারবেন আপনার ইচ্ছেমত!
এসব গেলো রকেটের প্রধান সুবিধাবলী। চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে সঠিক পদ্ধতিতে একটি রকেট একাউন্ট খোলার মাধ্যমে আপনি উপরোক্ত সুবিধাগুলো নিতে পারেন।

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করলে কি হয়

একটি রকেট একাউন্টে রেজিস্ট্রশন করার জন্য কি কি লাগে?

রকেট একাউন্ট খুলতে খুলতে আপনার যা যা লাগবে তা হলো:
১. আপনার NID কার্ড বা স্মার্ট কার্ড
২. একটি ইন্টারনেট কানেশনযুক্ত স্মার্টফোন
এবং একটি একটিভ ফোন নাম্বার

রকেট একাউন্ট খোলার পদ্ধতিসমূহ:

বিভিন্ন উপায়ে নতুন রকেট একাউন্ট রেজিট্রেশন করা যায় । আপনি চাইলে রকেট অ্যাপ ব্যাবহার করে অথবা রকেট মোবাইল ব্যাংকিং মেনু থেকেও রকেট একাউন্ট খুলতে পারেন । আপনার লোকেশনের কাছাকাছি রকেট এজেন্ট পয়েন্ট বা রকেট গ্রাহক সার্ভিস পয়েন্টে গিয়েও রকেট একাউন্ট খুলতে পারবেন। অথবা *৩২২# ডায়াল করেও আপনি রকেট একাউন্ট খুলতে পারেন।

চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে রকেট একাউন্ট খুলবেন।

আপনি খুব সহজে *৩২২# ডায়াল করে রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন
তার জন্য সর্বপ্রথম আপনার মোবাইল থেকে সর্বপ্রথম *322 # ডায়াল করুন।

রকেট একাউন্ট সেন্ড মানি করতে গেলে খরচ কত?

সেন্ড মানি করার ক্ষেত্রে কোনো চার্জ নেওয়া হয় না অর্থাৎ সম্পূর্ণ বিনামুল্যেই অন্য রকেট একাউন্টে টাকা পাঠানো সেন্ড মানি করা যাবে ।

রকেট একাউন্ট ক্যাশ আউট খরচ কত?

আপনি যদি রকেট এজেন্ট এর কাছ থেকে ক্যাশ আউট করেন তাহলে সেক্ষেত্রে ১.৮ শতাংশ হারে চার্জ প্রযোজ্য হবে। তারমানে এজেন্টদের কাছ থেকে ক্যাশ আউট করলে প্রতি ১০০০ টাকায় ১৮ টাকা চার্জ কাটা হবে । কিন্তু ডিবিবিএল শাখা বা ডিবিবিএল এটিএম বুথ থেকে টাকা তোলার ক্ষেত্রে ০.৯ শতাংশ হারে চার্জ কাটা হবে। অর্থাৎ প্রতি ১০০০ টাকায় মাত্র ৯ টাকা ক্যাশ আউট চার্জ প্রযোজ্য হবে ডিবিবিএল শাখা বা ডিবিবিএল এটিএম থেকে রকেট ক্যাশ আউট করলে।

আপনার রকেট একাউন্টের ব্যালেন্স কিভাবে দেখবেন?

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং মেনু ব্যবহার করে ইউএসএসডি ডায়াল করে রকেট একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে পারবেন অথবা অ্যাপ থেকে রকেট একাউন্ট ব্যালেন্স চেক করতে পারেন । রকেট একাউন্ট ব্যালেন্স দেখতে আপনাকে যা করতে হবে:
১. প্রথমে *৩২২# ডায়াল করুন ।
২. “My account” এর জন্য 5 লিখে রিপ্লাই করুন।
৩. এখন “Balanace” এর জন্য আবার 1 লিখে রিপ্লাই করুন
৪. এখন আপনার রকেট একাউন্ট এর সঠিক পিন লিখে রিপ্লাই করুন। প্রবেশকৃত পিন ঠিক থাকলে একাউন্ট ব্যালেন্স শো করবে।

হোয়াটসঅ্যাপে ডিলিট হওয়া কনভারসেশন ফিরে পাওয়া

আপনার রকেট একাউন্ট এর পিন পরিবর্তন

করবেন কিভাবে?

রকেট মোবাইল ব্যাংকিং মেনু ব্যাবহার করেই আপনি খুব সহজেই রকেট একাউন্টের পিন পরিবর্তন করতে পারেন। রকেট একাউন্ট এর পিন পরিবর্তন করতে আপনাকে যেটা করতে হবে:
১. প্রথমে *322# ডায়াল করে “My account” এ যাওয়ার জন্য 5 লিখে রিপ্লাই দিন।
২. এরপর “Change Password” এর অপশনের জন্য 3 লিখে রিপ্লাই করুন।
৩. এবার আপনার বর্তমান পিনটি প্রবেশ করুন,
এরপর নতুন পিন নাম্বার পরপর দুইবার প্রবেশ করুন করুন।
ব্যস! আপনার পিন পরিবর্তন হয়ে গেলো!

ভুলে যাওয়া পিন রিসেট করবেন কিভাবে?

বিভিন্ন উপায়ে রকেট একাউন্ট এর ভুলে যাওয়া পিন রিসেট করা যায় । ডাচ বাংলা ব্যাংক এর যেকোনো শাখা থেকে ভুলে যাওয়া রকেট একাউন্ট এর পিন রিসেট করতে পারবেন।
অথবা রকেট হেল্পলাইন নাম্বার ১৬২১৬ নাম্বারে কল করেও পিন রিসেট এর কথা জানালেও তারা ব্যবস্থা করে দেন। যেই নাম্বারে রকেট একাউন্ট খোলা সেই নাম্বার থেকে কল করলে বেশি ভালো হয়। হেল্পলাইনে কল করার সময় আপনার এনআইডি কার্ড সাথেই রাখুন। কারণ হেল্পলাইন থেকে যে এনআইডি কার্ড দিয়ে ওই রকেট একাউন্ট খোলা হয়েছে তার তথ্য চাইবে।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম
রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম
রকেট একাউন্ট নাম্বার দেখার নিয়ম, রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২২, রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১, জন্ম নিবন্ধন দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম, রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২০, রকেট একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম, রকেট একাউন্ট ব্যবহারের নিয়ম, রকেট একাউন্ট খোলার অফার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *