Vivo y30 6/128 Price in Bangladesh – বাংলাদেশে vivo y30 দাম

Rate this post

Vivo y30 6/128 Price in Bangladesh – বাংলাদেশে vivo y30 দাম

Vivo y30 6/128 Price in Bangladesh ভিভো ওয়াই ৩০ এর স্টোরেজ হিসাবে থাকছে ৬৪ জিবি রম এবং ৪ জিবি র্যাম। এই ভিভো ওয়াই   ভিভো ওয়াই ৩০ ফোনটির পেছনে আছে ৩টি ক্যামেরা: ১৩ মেগাপিক্সেল + ২ মেগাপিক্সেল (ম্যাক্রো) + ২ মেগাপিক্সেল (ডেপ্ত) এছাড়াও ফোনটির সামনের দিকে থাকছে সেলফি তোলার জন্য ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এই ফোনটি যথাক্রমে অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১০ ও ইউজার ইন্টারফেস (UI) Funtouch ১০.৫ এ চালিত। এ স্মার্টফোনটিতে স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০ চিপসেট ও অক্টা-কোর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে।

ভিভো ওয়াই ৩০ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৬.৫১” ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে যার রেজুলেশন ৭২০ x ১৬০০ পিক্সেল, ২০:৯ রেটিও (~২৭০ প্রতি ইঞ্চিতে পিক্সেলের ঘনত্ব)। এই ভিভো ওয়াই ৩০ স্মাটর্ফোনে সংযুক্ত থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট (side-mounted), accelerometer, proximity, compass সেন্সরসমূহ। ভিভো ওয়াই ৩০ মোবাইলটিতে ব্যবহার করা হয়েছে Li-Po ৫০০০ এমএএইচ, ব্যাটারি । এ ফোনটি বাজারে পাওয়া যাবে ব্ল, ব্ল্যাক ও ওয়াইট রঙে। এছাড়াও থাকছে আর কিছু অন্যান্য ফিউচার যেমন মাইক্রোইউএসবি ২.০, ওটিজি ইত্যাদি

গত মাসে ভারতে তাদের কম দামের স্মার্টফোন Vivo Y30 লঞ্চ করেছিল। পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে ও 5,000 এম‌এএইচ ব‍্যাটারীযুক্ত এই ফোনটি তখন একটি মাত্র র‍্যাম ভেরিয়েন্টে মার্কেটে আনা হয়। কিন্তু এখন বছর শেষ হ‌ওয়ার আগেই কোম্পানি এই ফোনটিকে আরও শক্তিশালী করে ফোনটির নতুন র‍্যাম ভেরিয়েন্ট পেশ করেছে। আজ থেকেই এই ভিভো ফোনটি অনলাইন শপিং সাইট ও অফলাইন রিটেইল স্টোরে সেল করা হবে।

বাংলাদেশে ভিভো y20 মূল্য

কোম্পানি তাদের Vivo Y30 ফোনটি 19.5:9 আসপেক্ট রেশিওযুক্ত ডিসপ্লের সঙ্গে লঞ্চ করেছে এবং এতে 1560 × 720 পিক্সেল রেজলিউশন সাপোর্টেড 6.47 ইঞ্চির আইপিএস এলসিডিআল্ট্রা ‘ও’ ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। ডিসপ্লের তিন দিক বেজল লেস করা হয়েছে ও নিচের দিকে চিন পার্ট আছে। স্ক্রিনের ওপরের বাঁদিকের কোণায় সেলফি ক‍্যামেরার জন্য পাঞ্চ হোল কাট‌আউট রয়েছে। এই ফোনটির ডায়মেনশন 162.04 × 76.46 × 9.11 এম‌এম ও ওজন 197 গ্ৰাম।

ভিভো y12 দাম কত

Vivo Y30 ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড

10 অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে ফানটাচ ওএস 10 এ কাজ করে। প্রসেসিঙের জন্য এতে অক্টাকোর প্রসেসরযুক্ত মিডিয়াটেক হেলিও পি35 চিপসেট দেওয়া হয়েছে। ভারতে ফোনটি এতদিন 4 জিবি র‍্যামের সঙ্গে 128 জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টে সেল করা হত। এখন ফোনটির নতুন 6 জিবি র‍্যাম ভেরিয়েন্ট লঞ্চ করা হয়েছে। এই ফোনের স্টোরেজ মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে বাড়ানো যায়।

ফোটোগ্রাফির জন্য Vivo Y30 তে কোয়াড রেয়ার ক‍্যামেরা সেট‌আপ দেওয়া হয়েছে। ফোনের ব‍্যাক প‍্যানেলে এফ/2.2 অ্যাপার্চারযুক্ত 13 মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক‍্যামেরা সেন্সরের সঙ্গে এফ/2.2 অ্যাপার্চারের ক্ষমতাসম্পন্ন 8 মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি সেন্সর ও দুটি এফ/2.4 অ্যাপার্চারযুক্ত 2 মেগাপিক্সেলের ক‍্যামেরা সেন্সর আছে। সেলফির জন্য Vivo Y30 তে 8 মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক‍্যামেরা দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশে vivo y30 দাম কত?

Vivo Y30 একটি 4জি ভোএলটিই সাপোর্টেড ডুয়েল সিম স্মার্টফোন। বেসিক কানেক্টিভিটির সঙ্গে সিকিউরিটির জন্য ফোনটির ব‍্যাক প‍্যানেলে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেওয়া হয়েছে। পাওয়ার ব‍্যাক‌আপের জন্য এতে 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টেড 5,000 এম‌এএইচের ব‍্যাটারী আছে।

বাজারে এল মোবাইলের আরও একটি নতুন সংযোজন। ভারতীয় বাজারে লঞ্চ হল স্টাইলিশ লুক-সহ এই স্মার্টফোন। তাতেই জানা গিয়েছে এই ফোনের বিস্তারিত তথ্য। চিনা স্মার্টফোন সংস্থা ভিভো তার মিডরেঞ্জ স্মার্টফোন ভিভো ওয়াই থার্টি ভারতের বাজারে নিয়ে এসেছে। ফোনটিতে একটি পাঞ্চহোল ডিসপ্লে ডিজাইন রয়েছে এবং এটি একটি রিয়ার ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এর বৈশিষ্ট্যও রয়েছে। ভিভোর এই ফোনটির দাম ১৪,৯৯০ টাকা। জেনে নেওয়া যাক ভিভো ওয়াইথার্টি স্মার্টফোনে কি কি ফিচার রয়েছে-

ভিভো ওয়াইথার্টি স্মার্টফোনে থাকছে ৪ জিবি ব়্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ ক্যাপাসিটি। এর সঙ্গে থাকছে ৬.৪৭ ইঞ্চি ফুল এইচডিআর পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। সেই সঙ্গে ভিভো ওয়াইথার্টি স্মার্টফোনে রয়েছে ওয়াটারড্রপ নচ ও আইপিএস এলসিডি ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন-সহ ১৬এম কালার। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে ভিভো ওয়াইথার্টি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যানন্ড্রয়েড ১০ ফানটাচ ১০.০ প্রসেসর। এছাড়া এই ফোনে থাকছে লাইট সেন্সর, প্রক্সিমাইটি সেন্সর ও কম্পাস। ফোনটি ডেজল ব্লু এবং মুনস্টোন হোয়াইট ভেরিয়েশনে পাওয়া যাবে।

এই স্মার্টফোনের ক্যামেরা অত্যন্ত আকর্ষণীয়। সেলফি ক্যামেরার জন্য থাকছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর। প্রাইমারি ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ১) ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ২) ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড সেন্সর ৩) ২ মেগাপিক্সেল-এর ম্যাক্রো লেন্স ৪) ২ মেগাপিক্সেল-এর ডেপথ সেন্সর-সহ এলইডি ফ্ল্যাস, এইচডি ও প্যানোরোমার সুবিধা। একই সঙ্গে ভিভো ওয়াইথার্টি স্মার্টফোনে থাকছে ফাস্ট চার্জ সাপোর্টের সঙ্গে নন রিমুভেবল ৫০০০ এমএএইচের ব্যাটারি। ফোনের স্ক্রীনের নীচের দিকে থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেনসর-এর সুবিধা।

এক্সিস ব্যাংক বাজ ক্রেডিট কার্ডের সঙ্গে স্মার্টফোন কেনার ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ ছাড় দেবে । এছাড়াও এই ফোনটি প্রতিমাসে ১২৫০ টি প্রাথমিক নো কস্টের ইএমআইতেও কেনা যাবে। সংস্থাটি ইতিমধ্যে মালয়েশিয়ায় লঞ্চ করেছে। যেখানে এটি ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভেরিয়েন্টে লঞ্চ হয়েছিল। মালয়েশিয়ার বাজারে এর দাম ১৫৮১০ টাকা।

বাংলাদেশে vivo y30 দাম
বাংলাদেশে vivo y30 দাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *